• বুধবার ২০শে জানুয়ারি, ২০২১ খ্রিস্টাব্দ ৬ই মাঘ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

    শিরোনাম

    সুবিধাভোগী মহল দেশে চরম উত্তেজনা তৈরি করছে: চরমোনাই পীর

    নিজস্ব প্রতিবেদক | ০৮ ডিসেম্বর ২০২০ | ১০:১৮ অপরাহ্ণ

    সুবিধাভোগী মহল দেশে চরম উত্তেজনা তৈরি করছে: চরমোনাই পীর

    ছবি: সংগৃহীত

    বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্যবিরোধী বক্তব্য রাখার দায়ে তিন আলেমের বিরুদ্ধে দায়ের হওয়া মামলা প্রত্যাহারের দাবি জানিয়েছেন ইসলামী আন্দোলনের আমির ও চরমোনাই পীর মুফতি সৈয়দ মোহাম্মাদ রেজাউল করীম। তিনি বলেন, ‘আমরা পরিষ্কার করে জানাচ্ছি যে, ওলামায়ে কেরামের দাবির মধ্যে বঙ্গবন্ধুর প্রতি কোনও বিদ্বেষ ছিল না, অসম্মানও ছিল না। আলেমসমাজ ও সাধারণ মুসলিম ধর্মপ্রাণ জনগণ এ ক্ষেত্রে সরকারের কাছে নিজেদের প্রাণের আকুতি তুলে ধরতেই পারে। মানা না মানা কর্তৃপক্ষের দায়িত্ব।’

    মঙ্গলবার (৮ ডিসেম্বর) দুপুরে রাজধানীর পুরানা পল্টনে দলীয় কার্যালয়ে আয়োজিত সংবাদ সম্মেলনে এসব কথা বলেন চরমোনাই পীর। ভাস্কর্য বিষয়ে রেজাউল করিম বলেন, ‘ওলামায়ে কেরাম কোরআন হাদিসের আলোকে তাদের মতামত জানান মাত্র। তারা কখনোই কাউকে আইন হাতে তুলে নিতে বলেন না।’


    তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশ সরকারের বিদ্যমান আইন-কানুন মেনেই তৌহিদী জনতা সমাবেশ করেছে। সেখানে শালীন ভাষাতেই যৌক্তিকভাবে ভাস্কর্য স্থাপনের বিরোধিতা করা হয়েছে। একইসঙ্গে বঙ্গবন্ধুকে সম্মান জানানোর বিকল্প পন্থাও প্রস্তাব করা হয়েছে। বিষয়টি একেবারেই স্বাভাবিক একটি নাগরিক প্রতিক্রিয়া। কিন্তু আমরা বিস্ময়ের সঙ্গে লক্ষ করলাম, একটি সুবিধাভোগী মহল বিষয়টিকে কেন্দ্র করে দেশে চরম উসকানি ও উত্তেজনা তৈরি করছে।’

    সংবাদ সম্মেলনে তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশ যখন করোনা পরিস্থিতির প্রথম ধাপ অতিক্রম করে দ্বিতীয় ধাপের হুমকি সামলাচ্ছে, দেশের সাধারণ মানুষ যখন রুটি-রুজি জোগাড়ে হিমশিম খাচ্ছে, দ্রব্যমূল্য যখন আকাশচুম্বি, যখন নাগরিক সমস্যা মোকাবিলায় দলমতের ঊর্ধ্বে উঠে জাতীয় ঐক্যের প্রয়োজন সবচেয়ে বেশি, তখন দেশের একটি চিহ্নিত মহল জনগণের মাঝে ঘৃণা ও বিভেদ সৃষ্টির অপচেষ্টা করছে।’


    রেজাউল করিম বলেন, ‘বাংলাদেশ স্বাধীন হয়েছে আজ ৫০বছর হতে চলছে। ঐক্যবদ্ধ এই জাতি মাত্র ৯মাসে দেশটাকে স্বাধীন করেছে। এখানকার মানুষের ভাষা-সংস্কৃতি-ধর্মও প্রায় এক। এমন ঐক্যবদ্ধতা যে কোনও জাতির জন্যই গর্বের। কিন্তু আমরা দুঃখের সঙ্গে লক্ষ্য করছি, একটি মহল জনতার এই ঐক্যকে ছিন্নভিন্ন করতে চায়।’

    চরমোনাই পীর দাবি করেন, ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের প্রতিষ্ঠাতা ও তার পরিবার ৭১ সালে একনিষ্ঠভাবে মুক্তি সংগ্রামের সহযোগী ছিলেন। তার দরবার ছিল এলাকার সব ধর্ম-বর্ণের মানুষের আশ্রয়স্থল। বিষয়টি এলাকায় সর্বজনবিদিত।


    Facebook Comments

    বাংলাদেশ সময়: ১০:১৮ অপরাহ্ণ | মঙ্গলবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২০

    qaominews.com |

    advertisement

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    advertisement
    শনিরবিসোমমঙ্গলবুধবৃহশুক্র
     
    ১০১১১২১৩১৪১৫
    ১৬১৭১৮১৯২০২১২২
    ২৩২৪২৫২৬২৭২৮২৯
    ৩০৩১ 
    advertisement

    Editor : A K M Ashraful Hoque

    51.51/A,, Resourceful Paltal City, Purana Paltan, Dhaka-1000
    E-mail : qaominews@gmail.com

    ©- 2021 qaominews.com all rights reserved