• বৃহস্পতিবার ২৬শে নভেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ ১১ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

    শিরোনাম

    মসজিদ থেকে ১২ নির্দেশনা প্রচারের অনুরোধ

    নিজস্ব প্রতিবেদক | ০৮ জুন ২০২০ | ৮:০১ অপরাহ্ণ

    মসজিদ থেকে ১২ নির্দেশনা প্রচারের অনুরোধ

    মহামারি করোনা ভাইরাস সংক্রমণ রোধে সচেতনাতা সৃষ্টির লক্ষ্যে মসজিদ ও অন্যান্য ধর্মীয় উপাসনালয় থেকে নিয়মিতভাবে মাইকে ১২টি নির্দেশনা প্রচারের আহবান জানিয়েছে ধর্ম মন্ত্রণালয়। নির্দেশনার প্রথমেই বলা হয়েছে- আতঙ্কিত না হয়ে মহান আল্লাহর উপর ভরসা রাখুন এবং করোনা মহামারি থেকে রক্ষা পাওয়ার জন্য দোয়া করুন। অনুরুপভাবে অন্যান্য ধর্মের অনুসারীগণও মহামারি থেকে রক্ষা পাওয়ার জন্য সৃষ্টিকর্তার নিকট প্রার্থনা করুন।

    সোমবার ধর্ম মন্ত্রণালয়ের উপসচিব মো: সাখাওয়াৎ হোসেন স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এ আহবান জানানো হয়।


    এতে দেশের সকল মসজিদের, খতিব, ইমাম, পরিচালনা কমিটির সদস্য এবং অন্যান্য ধর্মীয় উপাসনালয়ের ধর্মীয় নেতৃবৃন্দ, পরিচালনা কমিটির সদস্যদের অবগতি ও প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য জানানো হয় যে, দেশের সর্বত্র মহামারি করোনা ভাইরাস সংক্রমণ বিস্তার অব্যাহত রয়েছে। এই মহামারি সংক্রমন বিস্তার রোধে সরকার এবং সরকারের পাশাপাশি বেসরকারি সংগঠন ও প্রতিষ্ঠান, ইতোমধ্যে বিভিন্ন ধরনের প্রচারণা ও সচেতনতামূলক কর্মসূচি গ্রহণ করেছে। দেশের সকল মসজিদ থেকে প্রতিদিন ও জুমার খুতবার সময় মসজিদের মাইকে এবং অনুরুপভাবে অন্যান্য ধর্মীয় উপাসনালয় থেকে করোনাভাইরাস সংক্রমণ রোধে করণীয় সর্ম্পকে প্রচার করা হলে সাধারণ জনগণ এ বিষয়ে উদ্বুদ্ধ হয়ে আরো সচেতন হবে।

    ১২টি নির্দেশনার মধ্যে আরও বলা হয়, কিছুক্ষণ পর পর সাবান ও পানি দিয়ে ২০ সেকেন্ড যাবৎ দুই হাত ভালোভাবে পরিষ্কার করুন; ঘরের বাইরে গেলে অবশ্যই মাস্ক পরুন এবং চলাফেরা ও সকল কাজে সামাজিক দুরত্ব দুরত্ব বজায় রাখুন; অপরিষ্কার হাতে নাক, মুখ ও চোখ স্পর্শ করবেন না এবং যেখানে সেখানে কফ, থুতু ও ময়লা আবর্জনা ফেলা থেকে বিরত থাকুন; হাচিঁ- কাশির সময় টিস্যূ অথবা কাপড় ব্যবহার করুন বা বাহুর ভাজে নাক-মুখ ঢেকে রাখুন; ঘরে থাকুন এবং একান্ত জরুরি প্রয়োজনে ঘরের বাইরে যেতে হলে সামাজিক দুরত্ব বজায় রেখে চলাফেরা করুন; নিয়মিতভাবে পুষ্টিসমৃদ্ধ খাবার গ্রহণ করে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধি করুন; করোনা ভাইরাসের উপসর্গ দেখা দিলে ডাক্তারের শরণাপন্ন হোন। কোন প্রকার লুকোচুরি করবেন না। করোনা আক্রান্ত অধিকাংশ রোগীই চিকিৎসার পর সুস্থ্য হয়ে যান।


    আরও নির্দেশনা হচ্ছে- করোনা আক্রান্ত ব্যক্তি ও তাঁর পরিবারের সদস্যদের প্রতি সদ্ব্যবহার করুন; নিয়মিত শরীর চর্চা অথবা শারীরিক পরিশ্রম করুন; গুজব রটাবেন না, গুজবে কান দিবেন না এবং গুজবে বিচলিত হবেন না; করোনা মহামারি সংক্রমন রোধে সরকারের নির্দেশিত বিধি-নিষেধ এবং স্থানীয় প্রশাসনের নির্দেশনা অবশ্যই অনুসরণ করুন।

    বর্ণিত অবস্থায় দেশের সকল মসজিদ ও অন্যান্য ধর্মীয় উপাসনালয়ের মাইক থেকে নিয়মিতভাবে করোনা ভাইরাস সংক্রমন রোধে নিম্নবর্ণিত ঘোষণাসমূহ আবশ্যিকভাবে প্রচারের জন্য স্থানীয় প্রশাসন, ইসলামিক ফাউন্ডেশন, হিন্দু ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্ট, বৌদ্ধ ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্ট ও খ্রিস্টান ধর্মীয় কল্যাণ ট্রাস্টের কর্মকর্তা-কর্মচারী এবং সংশ্লিষ্ট মসজিদ ও উপাসনালয়ের পরিচালনা কমিটিকে অনুরোধ করা হয় ধর্মমন্ত্রণালয়ের পক্ষ থেকে। এছাড়া স্থানীয় প্রশাসনকে এ জরুরি বিজ্ঞপ্তি ব্যাপকভাবে প্রচারের জন্যও অনুরোধ করা হয়।


    Facebook Comments

    বাংলাদেশ সময়: ৮:০১ অপরাহ্ণ | সোমবার, ০৮ জুন ২০২০

    qaominews.com |

    advertisement

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    advertisement
    শনিরবিসোমমঙ্গলবুধবৃহশুক্র
     
    ১০১১১২১৩
    ১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
    ২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
    ২৮২৯৩০ 
    advertisement

    Editor : A K M Ashraful Hoque

    51.51/A,, Resourceful Paltal City, Purana Paltan, Dhaka-1000
    E-mail : qaominews@gmail.com

    ©- 2020 qaominews.com all rights reserved