প্রচ্ছদ আন্তর্জাতিক, স্লাইডার

তাজমহল চত্বরে জুমার নামায বন্ধের দাবি উগ্র সাম্প্রদায়িক সংগঠন আরএসএস’র

আন্তর্জাতিক ডেস্ক | শনিবার, ২৮ অক্টোবর ২০১৭ | পড়া হয়েছে 339 বার

তাজমহল চত্বরে জুমার নামায বন্ধের দাবি উগ্র সাম্প্রদায়িক সংগঠন আরএসএস’র

ভারতে বিশ্বখ্যাত ঐতিহাসিক তাজমহল চত্বরে জুমার নামায বন্ধ করার দাবি জানালো উগ্র সাম্প্রদায়িক হিন্দু সংগঠন আরএসএসের ইতিহাস শাখা ‘অখিল ভারতীয় ইতিহাস সংকলন সমিতি। জুমার নামাযের জন্য প্রত্যেক শুক্রবার তাজমহল বন্ধ থাকে।
গণমাধ্যমে দেয়া এক সাক্ষাৎকারে সংগঠনটির জাতীয় সম্পাদক বালমুকুন্দ পাণ্ডের দাবি, নামায পড়া যদি বন্ধ করা না হলে সেখানে হিন্দুদের শিব চালিশা পাঠ করতে দিতে হবে। তিনি বলেন, তাজমহল জাতীয় সম্পত্তি। সেখানে মুসলমানদের ধর্মীয় স্থান হিসেবে ব্যবহার করতে দেয়া হবে কেন?’

তার দাবি, এটি প্রমাণিত যে তাজমহল একটি শিব মন্দির ছিল, যা এক হিন্দু রাজা তৈরি করেছিলেন।তাজমহল ভালবাসার নিদর্শন নয়। মমতাজের মৃত্যুর চার মাসের মধ্যে শাহজাহান দ্বিতীয় বিয়ে করেছিলেন। তাজমহল সম্পর্কে সমস্ত প্রমাণাদি জোগাড়  করে সকলের সামনে তা তুলে ধরা হবে বলেও বালমুকুন্দ পাণ্ডে বলেন। তিনি বলেন, তাদের সংগঠন সমস্ত প্রাচীন স্থাপনার তালিকা তৈরি করছে যেসব স্থাপনা মুসলিম শাসকরা ভেঙে মসজিদ অথবা অন্য কোনো ভবন নির্মাণ করেছিল।

তাজ মহল

সম্প্রতি বিজেপি বিধায়ক জগন প্রসাদ গর্গ তাজমহলকে শিবমন্দির বলে দাবি করেছেন। মুঘলরা সেই মন্দির ধ্বংস করে তাজমহল তৈরি করেছিল বলে তার দাবি। এর আগে বিজেপি এমপি বিনয় কাটিয়ার তাজমহলকে তেজো মহালয় ও শিব মন্দির বলে দাবি করেছেন।

উত্তর প্রদেশের বিজেপি বিধায়ক সঙ্গীত সোম তাজমহলকে ভারতীয় সংস্কৃতির কলঙ্ক ও তা বিশ্বাসঘাতকদের তৈরি বলে বিতর্কিত মন্তব্য করেছেন।

এসব ঘটনার মধ্যে গত সোমবার তাজমহল চত্বরে রাষ্ট্রীয় স্বাভিমান দল ও হিন্দু যুব বাহিনী নামে দুটি উগ্র সংগঠনের সদস্যরা ‘শিব চালিশা’ পাঠ করলে সেখানে উত্তেজনা সৃষ্টি হয়। ঘটনাস্থলে মোতায়েন থাকা সেন্ট্রাল ইন্ডাস্ট্রিয়াল সিকিউরিটি ফোর্সের (সিআইএসএফ) সদস্যরা তাদের আটক করেও অভিযুক্তদের ছেড়ে দেয়া হয়।

বৃহস্পতিবার উত্তর প্রদেশের মুখ্যমন্ত্রী যোগী আদিত্যনাথ তাজমহল পরিদর্শন করে একে ভারতের অমূল্য রত্ন এবং এখানকার শ্রমিকদের রক্ত ও ঘামের বিনিময়ে তা তৈরি হয়েছে বলে মন্তব্য করেন।  কিন্তু আজই আর এস এসের ইতিহাস শাখার পক্ষ থেকে তাজমহল চত্বরে জুমার নামায বন্ধের দাবি প্রকাশ্যে এল। সূত্র: এক্সপ্রেসনিউজ, পার্সটুডে

qaominews.com/কওমীনিউজ/এইচ

মন্তব্য করতে পারেন...

comments

আর্কাইভ