প্রচ্ছদ সংগঠন সংবাদ, স্লাইডার

জমিয়ত থেকে মুফতী ওয়াক্কাস বহিষ্কার: নিশ্চিত হলো ভাঙ্গন

স্টাফ রিপোর্টার | বুধবার, ১০ জানুয়ারি ২০১৮ | পড়া হয়েছে 1329 বার

জমিয়ত থেকে মুফতী ওয়াক্কাস বহিষ্কার: নিশ্চিত হলো ভাঙ্গন

মুফতী ওয়াক্কাস

জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম বাংলাদেশের সহ-সভাপতি মুফতী মোহাম্মাদ ওয়াক্কাসকে দল থেকে চূড়ান্তরূপে বহিস্কার করা হয়েছে। গত ৯/১২/১৭ ইং তারিখে অনুষ্ঠিত কার্যনির্বাহী পরিষদের সর্বসম্মত সিদ্ধান্ত মোতাবেক তার কার্যনির্বাহী সদস্যপদ স্থগিত করত: কারণ দর্শানোর নোটিশের কোন জবাব তিনি গতকাল পর্যন্ত দেননি। তাছাড়া সংগঠনবিরোধী যাবতীয় অপতৎপরতা বন্ধ করার শর্তে সর্বশেষ গত ৭/০১/১৮ইং তারিখে সিলেটে অনুষ্ঠিত বৈঠকে দলের সভাপতি শায়েখ আব্দুল মু’মীন সাহেব তাকে দলে ফেরত আনার সিদ্ধান্ত দেওয়ার পরেও তিনি উক্ত অপতৎপরতা গতকাল পর্যন্ত বন্ধ করেননি, দলের নামে বৃহস্পতিবার জাতীয় প্রেস ক্লাবে অবৈধভাবে কনভেনশন করা থেকে বিরতও হননি। তাই গতকাল দলীয় কার্যালয়ে অনুষ্ঠিত দলের কার্যনির্বাহী পরিষদের (মজলিসে আমেলার) জরুরী সভায় সর্বসম্মতভাবে দল তার বিরুদ্ধে উল্লিখিত সিদ্ধান্তগ্রহণ করে। তৎসঙ্গে দলীয় শৃংখলা ভঙ্গের দায়ে সহসভাপতি মাওলানা মনসুরুল হাসান রায়পুরী ও যুগ্ম মহাসচিব মাওলানা শেখ মুজীবুর রহমানের সদস্যপদ স্থগিত করত: তাদেরকে কারণ দর্শানোর নোটিশ প্রদানের সিদ্ধান্ত গৃহীত হয়।

মজলিসে আমেলার বৈঠক শেষে দলটির একাংশের তাৎক্ষণিকভাবে আয়োজিত প্রেস ব্রিফিংয়ে উক্ত সিদ্ধান্তের কথা জানান মহাসচিব মাওলানা নূর হোসাইন কাসেমী।

এসময় প্রেস ব্রিফিংয়ে উপস্থিত ছিলেন মাওলানা জহিরুল হক ভুইঁয়া, মাওলানা জুনায়েদ আল হাবীব, মাওলানা ওবায়দুল্লাহ ফারুক, মাওলানা মঞ্জুরুল ইসলাম আফেন্দী, মাওলানা আব্দুল বাসির, মাওলানা মুনীর হোসাইন কাসেমী প্রমূখ।

বর্তমান প্রেক্ষিতে জমিয়তে উলামায়ে ইসলাম দেশ স্বাধীনের ৪৩ বছর পর কঠিন সংকটকাল অতিক্রম করছে। সংবাদ সম্মেলনে সাংবাদিকদের সহযোগিতা কামনা করেন দলীয় মহাসচিব মাওলানা কাসেমী। তিনি কোন গুজবে কান না দিয়ে এবং বিভ্রান্ত না হয়ে দলীয় নেতাকর্মীদেরকে শৃংখলা বজায় রেখে সাংগঠনিক কাজ চালিয়ে যাওয়ার আহ্বান জানান।

qaominews.com/কওমীনিউজ/বি

মন্তব্য করতে পারেন...

comments

আর্কাইভ