• সোমবার ৩০শে নভেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ ১৫ই অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

    শিরোনাম

    বেফাকের ইতিহাস সম্পর্কে

    জমিয়ত নেতৃবৃন্দের খোলা চিঠির জবাবে আল্লামা নদভী

    ফিচার ডেস্ক | ২১ জুলাই ২০২০ | ১২:৪৫ অপরাহ্ণ

    জমিয়ত নেতৃবৃন্দের খোলা চিঠির জবাবে আল্লামা নদভী

    ছবি: কওমীনিউজ

    বেফাকুল মাদারিসিল আরাবিয়া বাংলাদেশের ইতিহাস সম্পর্কে জমিয়ত নেতৃবৃন্দের খোলা চিঠির জবাবে অধম গুনাহগার বলতে চাই- মুহতারাম শাইখ মাওলানা মুখলিসুর রহমান রাজাগঞ্জী হাফিজাকুমুল্লাহু ওয়া রা’আকুম। ওয়া আলাইকুমুস সালাম ওয়া রহমাতুল্লাহি ওয়া বারাকাতুহু।

    ১. হযরত আপনার পরিবেশিত প্রতিটি তথ্য ও উপাত্তের সাথে আমি আপনার মতোই একমত।
    ২. যেসব প্রশ্ন আপনি উত্থাপন করেছেন, এসব আমারও জানার আগ্রহ রয়েছে।


    ৩. বেফাকের নিজস্ব লোকজন যে ইতিহাস পরিবেশন করেছেন, এসব আমার আব্বার গোচরে বা সময়কালে তৈরি নয়। আমি সেসবের প্রতি শ্রদ্ধা প্রদর্শন করেই বলতে চাই যে, এসবে কিছু অপূর্ণতা বা ত্রুটি রয়ে গেছে। অনেক পয়েন্ট ছুটে গেছে বা ইতিহাসের অনেক অংশ অকথিত রয়ে গেছে। প্রতিষ্ঠা থেকে তিনবার মহাসচিব ও নিজ মৃত্যু পর্যন্ত সহসভাপতি থাকা সত্বেও এসব ইতিহাসে তিনি প্রায় নেই বললেই চলে। আমার হাতে হযরত মাওলানা আবদুল জাব্বার রহ. ও হযরত মাওলানা আবুল ফাতাহ মুহাম্মদ ইয়াহইয়া রহ. কৃত পুস্তক এমুহূর্তে অধমের কাছে নাই। আমি জানিনা, উনাদের পুস্তকে আমার আব্বাজানের উল্লেখ আছে কিনা বা থাকলেও কী রকমের আছে। এসব পুস্তক ও প্রকাশনায় আরো অনেক বিষয়, ব্যক্তি বা ঘটনার উল্লেখ হয়ইনি। হলেও যথাযথ ভাবে বোধ হয় হয়নি। এসব নিয়ে আরো পূর্ণাঙ্গ ইতিহাস প্রচারিত হওয়া উচিত।

    ৪. মাওলানা মুহিউদ্দীন খান রহ. লিখিত ইতিহাস আরেকটু বিস্তারিত। তার বর্ণনা করা মৌখিক ইতিহাস ও নানা পর্যায়ে বিভিন্ন সময় অনেকের সামনে করা খেদোক্তি থেকেও ইতিহাসের সংগ্রাহকগণ আলো পেতে পারেন।


    ৫. আমি আমার বিভিন্ন লেখা, আলোচনা ও লাইভ প্রোগ্রামে প্রাপ্ত সব ইতিহাস বলে থাকি। আলোচ্য লাইভে আমি বেফাক গঠনের ইতিহাস বলিনি। লাইভের বিষয়বস্তুর সাথে প্রাসঙ্গিক নানা কিছু বলেছি। যার কোনটাই হক আদায় করে বলার সুযোগ ছিল না। এসব বিষয়ে প্রয়োজনে স্বতন্ত্র প্রোগ্রাম হতে পারে। ৬৭ সালে কিশোরগঞ্জে বেফাকের সূচনা, জামিয়ার প্রিন্সিপাল মাওলানা আহমাদ আলী খান রহ. ও খতীবে আযম মাওলানা সিদ্দীক আহমদ রহ. কে সভাপতি এবং সেক্রেটারী করে কমিটি গঠন, এরপর ঢাকার বড় কাটারায় কমিটির আরেকটি মিটিং, (এরপর আর কোনো অগ্রগতি না হওয়া) মুক্তিযুদ্ধ পরবর্তী যুগে আরো অনেক বিষয় ও উদ্যোগ এবং ১৯৭৮ সালে বাস্তবে বেফাকের রূপ দেওয়া প্রভৃতির বিষয়ে আমার কোনো দ্বিমত নেই।

    আমার নতুন তথ্য উপস্থিত বড়োদের মুখে শোনা, হযরত শাহ সাহেব হুজুর রহ. এর জবানিতে শোনা,তাঁর বয়ানের রেকর্ডে এবং কিছু প্রবীণ আলেম উলামার লেখাতেও আমি এসব পেয়েছি। বেফাকের আরো পূর্ণাঙ্গ ইতিহাস রচনার ক্ষেত্রে আমি এসব সূত্র, তথ্য ও উপাত্তের সন্ধান দিয়ে সহায়তা করার আশা রাখি।


    আমাকে অনুগ্রহ করে এই খোলা চিঠি প্রদানের জন্য অনেক জাযাকুমুল্লাহ। আল্লাহ আমাদের সবাইকে হেফাজত ও কবুল করুন এবং আখিরাতে নাজাত দান করে চিরসুখী করে দিন। আমীন।

    সালাম ও দোয়া রইলো।
    দোয়ার মুহতাজ:
    আপনাদের একান্ত-
    উবায়দুর রহমান খান নদভী

    খোলা চিঠির জবাব পেয়ে যা বললেন মাওলানা মুখলিসুর রহমান রাজাগঞ্জী

    :জাযাকাল্লাহ।
    অভিনন্দন আপনাকে সত্য ও বাস্তবতার প্রতি নিঃশর্ত সমর্থন ব্যক্ত করায়।

    আমার প্রশ্নমালার জবাব আপনার নিজ কলমে পরিবেশন করার মাধ্যমে আপনি খোলামনের ও নিষ্ঠাবানের পরিচয় দিয়েছেন। আপাতত এইটুকুতেই আমি সন্তুষ্ট। ভবিষ্যতে সময় সুযোগে বেফাক প্রতিষ্ঠার ইতিহাস আদিঅন্ত আপনার মুখনিঃসৃত ভাষায় ভিডিওতে শোনাবেন এবং এই বিষয়ে সবিস্তারে বই লেখে অন্যান্য আকাবিরের মতো বেফাক প্রতিষ্ঠার চূড়ান্ত পরিমার্জিত সহিহ দলিল ও তথ্যভিত্তিক ইতিহাস রচনা করে কওমি অঙ্গনের ইতিহাস অনুসন্ধানিদের খোরাক দিবেন।

    এই আশাবাদ ব্যক্ত করে আবারও আপনাকে ধন্যবাদ জানিয়ে আপনার সার্বিক মঙ্গল কামনা করত সহযোগিতার আশ্বাস দিয়ে
    বিদায় নিলাম।

    Mukhlisur Rahman rajagonji.
    Sylhet.21-07-20

    Facebook Comments

    বাংলাদেশ সময়: ১২:৪৫ অপরাহ্ণ | মঙ্গলবার, ২১ জুলাই ২০২০

    qaominews.com |

    advertisement
    advertisement
    শনিরবিসোমমঙ্গলবুধবৃহশুক্র
     
    ১০১১১২১৩
    ১৪১৫১৬১৭১৮১৯২০
    ২১২২২৩২৪২৫২৬২৭
    ২৮২৯৩০ 
    advertisement

    Editor : A K M Ashraful Hoque

    51.51/A,, Resourceful Paltal City, Purana Paltan, Dhaka-1000
    E-mail : qaominews@gmail.com

    ©- 2020 qaominews.com all rights reserved