• রবিবার ৬ই ডিসেম্বর, ২০২০ খ্রিস্টাব্দ ২১শে অগ্রহায়ণ, ১৪২৭ বঙ্গাব্দ

    শিরোনাম

    গ্যাসের দাম বৃদ্ধি করা যুক্তিযুক্ত নয়

    অনলাইন ডেস্ক | ০৩ সেপ্টেম্বর ২০২০ | ৮:২৮ অপরাহ্ণ

    গ্যাসের দাম বৃদ্ধি করা যুক্তিযুক্ত নয়

    ছবি: কওমীনিউজ

    দেশে অক্সিজেনের মূল্য নিয়ে প্রতারণা চলছে। এই প্রতারণা রোধে দ্রুত মূল্য পুননির্ধারণ ও এই প্রতারণার সাথে জড়িতদের আইনের আওতায় আনতে হবে। অক্সিজেন নিয়ে কোন রকম সিন্ডিকেট যাতে অস্থিরতা সৃষ্টি করতে না পারে তার জন্য সরকারকে দ্রুত কার্যকরী পদক্ষেপ গ্রহন করতে হবে।

    বৃহস্পতিবার (৩ সেপ্টেম্বর) জাতীয় প্রেসক্লাবের সামনে গ্যাস প্রডিউসার এন্ড ইম্পোর্টার এসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ কর্তৃক বৈশ্বিক করোনা মহামারির এই সময়ে গ্যাসের মুল্য বৃদ্ধি কার্যকর করার প্রতিবাদে আয়োজিত মানববন্ধন ও প্রতিবাদ সমাবেশে নেতৃবৃন্দ এ দাবী জানান।


    সংগঠনের সভাপতি মোহাম্মদ আতাউল্লাহ খানের সভাপতিত্বে মানবন্ধনে সংহতি প্রকাশ করে বক্তব্য রাখেন কেন্দ্রীয় আওয়ামী লীগ নেতা আলহাজ্ব ব্যারিস্টার জাকির আহমেদ, বাংলাদেশ ন্যাপ এর মহাসচিব গোলাম মোস্তফা ভুইয়াসহ আরও নেতৃবৃন্দ।

    মানববন্ধনে বক্তারা বলেন, গ্যাস প্রডিউসার এন্ড ইম্পোর্টার এসোসিয়েশন অব বাংলাদেশ কর্তৃক ১৩ আগস্ট ২০২০ হঠাৎ করে খুচরা ব্যবসায়ীদের মুল্য বৃদ্ধির নোটিশ দিয়ে ১৬ আগস্ট থেকে ২০ টাকার কিউবিক মিটার অক্সিজেন এর মুল্য ২৭ টাকা নির্ধারন করে যাহা অযৌক্তিক ও করোনাকালে অমানবিকও বটে । কার্বনডাই অক্সাইড এর মুল্য ২৫ টাকা কেজি থেকে ৩০ টাকা নির্ধারন করা হয়। আর্গন গ্যাসের মুল্য ১৩০ টাকা হতে বাড়িয়ে ২০০ টাকা নির্ধারন করা হয়। এসিটিলিন গ্যাস এর মূল্য ৪৫০ টাকা থেকে ৫৫০ টাকা করা হয় ।


    তারা বলেন, বর্তমানে লক্ষাধীক করোনা রোগী ও সাধারন ভোক্তা সহ ৪৮০ জন ছোট বড় খুচরা ব্যবসয়ী ও প্রায় ১ লক্ষাধীক শিল্প কল-কারখানার মালিক ও ১০ লক্ষাধীক শ্রমিক গ্যাস প্রডিউসার এন্ড ইম্পোর্টার এসোসিয়েশন অব বাংলাদেশের কাছে এক প্রকার জিম্মি হয়ে আছে।

    করোনাকালীন সময়ে শ্রমিকদের বেতন কমানো হচ্ছে। শহর ছেড়ে মানুষ গ্রামে চলে যাচ্ছে। বিভিন্ন কল-কারখানা বন্ধ হয়ে যাচ্ছে। মানুষ অসহায় জীবন-যাপন করছে এমন সময় হঠাৎ করে গ্যাসের দাম বৃদ্ধি করা যুক্তিযুক্ত নয়। দেশে বিদ্যুৎ এর দাম বৃদ্ধি হয়নি, জালানি তেলের দাম বৃদ্ধি ও হয়নি, আন্তর্জাতিক বাজারে কাঁচামাল এর মুল্য বৃদ্ধিও হয়নি, হয়নিা সরকারি ট্যাক্স বৃদ্ধি? তা হলে প্রশ্ন উঠেছে এই সিদ্ধান্ত কি সরকারকে বেকায়দায় ফেলানোর জন্য? না অসহযোগিতার জন্য?


    মানববন্ধনে আগামী ৬ সেপ্টেম্বর ২০২০ রবিবার, মহামান্য রাস্ট্রপতির কার্যালয়, মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়, বাণিজ্য মন্ত্রণালয়, শিল্প মন্ত্রনালয় ও ভোক্তা অধিকার সংরক্ষন অধিদপ্তর সহ সংশ্লিষ্ট কর্তৃপক্ষের কাছে স্বারকলিপি প্রদান করার কর্মসূচী ঘোষনা করা হয়।

    Facebook Comments

    বাংলাদেশ সময়: ৮:২৮ অপরাহ্ণ | বৃহস্পতিবার, ০৩ সেপ্টেম্বর ২০২০

    qaominews.com |

    advertisement

    এ বিভাগের সর্বাধিক পঠিত

    advertisement
    শনিরবিসোমমঙ্গলবুধবৃহশুক্র
     
    ১০১১
    ১২১৩১৪১৫১৬১৭১৮
    ১৯২০২১২২২৩২৪২৫
    ২৬২৭২৮২৯৩০৩১ 
    advertisement

    Editor : A K M Ashraful Hoque

    51.51/A,, Resourceful Paltal City, Purana Paltan, Dhaka-1000
    E-mail : qaominews@gmail.com

    ©- 2020 qaominews.com all rights reserved